১৭ই মার্চ বাংলাদেশে আসছেন নরেন্দ্র মোদি

0
311

ডেস্ক রিপোর্টঃ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর উদ্বোধনীতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যোগ দিচ্ছেন। পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন জানিয়েছেন- ১৭ই মার্চ সকালে মোদি ঢাকা পৌঁছাচ্ছেন। দিনব্যাপী আয়োজনের গুরুত্বপূর্ণ পর্বে ঐতিহাসিক বন্ধু ভারতের প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত থাকবেন। গতকাল বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ আয়োজিত আসেম ডে সেলিব্রেটিং অ্যান্ড ফস্টারিং কানেক্টিভিটি শীর্ষক সেমিনার শেষে সচিব সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর আয়োজনে মোদি আসছেন এটা নিশ্চিত। তবে সেটি ১৬ বা ১৭ই মার্চ হতে পারে। ১৭ই মার্চ সকালে আসার সম্ভাবনাই বেশি। দিল্লির সাম্প্রতিক দাঙ্গার পর ডান বাম মধ্যম বিভিন্ন রাজনৈতিক দল মোদির আমন্ত্রণ প্রত্যাহারে সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছে।

এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে সচিব বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্ম শর্তবার্ষিকী উপলক্ষে অনেক বড় অনুষ্ঠান হবে বাংলাদেশে।

এমন একটি উদযাপনে ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানানো
আমাদের দায়িত্ব। কেননা মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় প্রতিবেশী দেশ ভারতের ভূমিকা
ছিলো গুরুত্বপূর্ণ। সেই প্রেক্ষিতে আমরা চাইবো ভারতের প্রধানমন্ত্রী
আমাদের অনুষ্ঠানে যোগ দিন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে আসার পর কী কী
কার্যক্রম থাকবে এমন প্রশ্নে পররাষ্ট্রসচিব বলেন, মোদি বাংলাদেশে আসলে
মুজিব বর্ষ উদযাপনকেই আমরা গুরুত্ব দিবো। তবে ইতিমধ্যে কিছু প্রজেক্ট চালু
হয়েছে সেগুলো উদ্বোধনের একটা ব্যাপার থাকতে পারে। কিছু এমওইউ আছে, যেগুলো
রেডি আছে সেগুলো আমরা সাইন করতে পারি। কিন্তু মূল ফোকাস থাকবে জাতির পিতার
জন্মশতবার্ষিকী। দিল্লির সহিংসতার বিষয়ে পররাষ্ট্র সচিব মোমেন বলেন, এটা
তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। তবে আমরা চাই বিষয়টি দ্রুত নিয়ন্ত্রণে আসুক। এটা
তারা সমাধানের চেষ্টা করেন বলেও ঢাকা আশাবাদী। এদিকে ভারতের পরাষ্ট্রসচিব
ভারতের নবনিযুক্ত পররাষ্ট্র সচিব হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা আসছেন আজ। তার সফরে কী
কী এজেন্ডা থাকবে সেই বিষয়ে কথা বলেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রসচিব। তিনি
বলেন, ভারতের পররাষ্ট্র সচিব যেহেতু বাংলাদেশের হাইকমিশনার ছিলেন সেহেতু
বাংলাদেশের ব্যাপারে তার খুব ভালো বোঝাপড়া আছে। আমার জানামতে ওনার সময়
বাংলাদেশে বেশকিছু ভালো কাজও হয়েছিলো। ওনি এসে হয়তো বিভিন্ন বিষয়ে
বাংলাদেশের বর্তমান স্ট্যাটাস কী এবং অন্যান্য সময় যে সব বোঝাপড়া হয়েছিলো
সেগুলো কোন পর্যায়ে আছে সেগুলো দ্রুত একটা পর্যালোচনা তিনি করবেন। তাছাড়া
১৭ই মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে আসার ব্যাপারেও কিছু আলোচনা করবো
আশা করি। ভারতের নবনিযুক্ত পররাষ্ট্র সচিব হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা তার প্রথম
ঢাকা সফরে বিস ও ভারতীয় হাইকমিশনের যৌথ আয়োজনে ‘বাংলাদেশ অ্যান্ড ইন্ডিয়া: এ
প্রমিজিং ফিউচার’ শীর্ষক সেমিনারে বক্তৃতা করবেন। আজ দিনের শুরুতেই সেই
বক্তৃতা করার কথা রয়েছে। সফরকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পররাষ্ট্র
মন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেনের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ ছাড়াও পররাষ্ট্র সচিব
পর্যায়ে আনুষ্ঠনিক বৈঠক হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here